Thursday 9th of December 07:27:32am

Type 2 Diabetes-টাইপ 2 ডায়াবেটিস কি? লক্ষণ এবং আপনি কী খাবেন ?

Type 2 Diabetes-


টাইপ 2 ডায়াবেটিস কি? লক্ষণ  এবং আপনি কী খাবেন ?


টাইপ 2 ডায়াবেটিস মূলত একটি দীর্ঘস্থায়ী সমস্যা। শরীরে ইনসুলিন হরমোনের কার্যকারিতা কমে গেলে এই সমস্যা দেখা দেয়।

বর্তমানে বেশিরভাগ মানুষ  টাইপ 2 ডায়াবেটিসে ভুগছেন। ফলে শরীরে একাধিক সমস্যা দেখা দিচ্ছে।  সাধারণভাবে ডায়াবেটিস বোঝা না গেলেও পরীক্ষার পর বোঝা সম্ভব। ডায়াবেটিসের জন্য জীবনযাত্রায় বেশ কিছু পরিবর্তন প্রয়োজন। খাওয়া দাওয়া এবং সচেতন হলে ডায়াবেটিস থেকে দূরে থাকা সম্ভব। উপরন্তু, বিশেষজ্ঞরা নিয়মিত ব্যায়াম করার পরামর্শ দেন।


গত দুই দশকে অনেক মানুষ টাইপ 2 ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার যথেষ্ট কারণ রয়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। মূলত, যাদের বয়স ৫০ বছরের বেশি তারা এই রোগে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়। যাইহোক, পুরুষ এবং মহিলা উভয়েরই টাইপ 2 ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।


প্রথমেই জেনে নেওয়া যাক টাইপ 2 ডায়াবেটিস কি?


টাইপ 2 ডায়াবেটিস মূলত একটি দীর্ঘস্থায়ী সমস্যা। শরীরে ইনসুলিন হরমোনের কার্যকারিতা কমে গেলে এই সমস্যা হয়। ইনসুলিন হরমোন মূলত শরীরে রক্তে শর্করার মাত্রা ঠিক রাখে। 


কেন ইনসুলিনের মাত্রা পরিবর্তন হয়? এই সমস্যা দুটি কারণে ঘটতে পারে।


প্রথমত, শরীরে ইনসুলিন উৎপাদন স্বাভাবিকের চেয়ে কম হয় বা ইনসুলিন কোষ ঠিকমতো কাজ করতে পারে না। রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে গেলে হার্ট, চোখ এবং কিডনির সমস্যা সহ একাধিক সমস্যা হতে পারে। এটি স্নায়ুতন্ত্রকেও প্রভাবিত করতে পারে। সবচেয়ে কঠিন অংশ হল ডায়াবেটিসের লক্ষণ থেকে সাময়িক স্বস্তি পাওয়া। কিন্তু পুরোপুরি নিরাময় করা সম্ভব নয়।


উপসর্গ গুলো কি?


টাইপ 2 ডায়াবেটিসের লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে:

খুব পিপাসা লাগছে

প্রস্রাবের পরিমাণ বৃদ্ধি

ঝাপসা দৃষ্টি

মেজাজ দুলছে

হাত -পায়ে অসাড় লাগছে

ওজন কমানোর পরে ক্লান্তি এবং অবিরাম ক্লান্তি আসবে।

আপনার টাইপ 2 ডায়াবেটিস হলে এই লক্ষণগুলি সাধারণত দেখা যায়।



কাদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি?

মধ্যবয়সী এবং বয়স্ক ব্যক্তিদের টাইপ 2 ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তবে যারা অল্প বয়সে স্থূলতায় ভুগছেন তারাও এই রোগে আক্রান্ত হতে পারেন।  শরীরের অতিরিক্ত মেদ এই সমস্যার অন্যতম কারণ। অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত খাবার খেলে শরীরে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি চর্বি জমে। এর ফলে টাইপ 2 ডায়াবেটিস হতে পারে।


এ নিয়ে একাধিক গবেষণা হয়েছে। দেখা গেছে নারীদের তুলনায় পুরুষদের শরীরে মেদ বেশি থাকে। এজন্য তাদের টাইপ 2 ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। অন্যদিকে মহিলাদের ক্ষেত্রে নিতম্ব ও পায়ে চর্বি জমে।


চর্বি মূলত দুই প্রকার। প্রথমটি হলো সাবকিউটেনিয়াস ফ্যাট। যা মহিলাদের পায়ে ও নিতম্বে জমে। অন্যদিকে, আরেক ধরনের চর্বি হল অভ্যন্তরীণ চর্বি। যা মূলত ক্ষতিকর। শরীরে অভ্যন্তরীণ চর্বির আধিক্য থাকলে টাইপ 2 ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।


টাইপ 2 ডায়াবেটিস স্থূল মহিলাদের মধ্যেও হতে পারে। এমনকি যদি পুরুষ এবং মহিলা উভয়েরই একই বডি মাস ইনডেক্স বা BMI থাকে, তবে পুরুষদের মহিলাদের তুলনায় সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। পুরুষদেরও মহিলাদের তুলনায় অ্যালকোহল সেবন এবং ধূমপানের মাত্রা বেশি। এজন্য তাদের টাইপ 2 ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।



কি সমস্যা তৈরি হতে পারে?

স্ট্রোক, কিডনির সমস্যা এবং হার্টের সমস্যা সহ একাধিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। কিছু বিশেষজ্ঞ এটিকে সাইলেন্ট কিলারও বলে থাকেন। এর পিছনে যুক্তি হল যে টাইপ 2 ডায়াবেটিস কোনও উপসর্গ না দেখিয়ে একাধিক অঙ্গকে বিকল করে দেয়। তাই সঠিক সময়ে যত্ন নেওয়া দরকার।



আপনি কী খাবেন ?

অনেকেই ডায়াবেটিক হলেও কী খাবেন তা নিয়ে দ্বিধাগ্রস্ত থাকেন। কি ধরনের খাবার খাওয়া উচিত এবং কোন খাবার খাওয়া উচিত নয় তা বুঝতে পারছেন না। চলুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক-


আপনাকে খাওয়ার দিকে নজর দিতে হবে জাঙ্ক ফুড, অতিরিক্ত চিনিযুক্ত খাবার, অ্যালকোহল এড়িয়ে চলতে হবে। কারণ এটি রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ায়। এছাড়াও নিয়মিত ব্যায়াম প্রয়োজন।


ডায়াবেটিস রোগীরা যেসব ফল খেতে পারেন তা হল আপেল, কমলা, লেবু, আঙ্গুর, তরমুজ, পীচ এবং শসা।


প্রায় সব ধরনের সবজি খাওয়া যায়। যাইহোক, যে সবজিগুলো খাদ্য তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে হবে সেগুলো হল ব্রকলি, ফুলকপি, পালং শাক ইত্যাদি সবজি খাওয়া যাবে। ওটস, ব্রাউন রাইস ইত্যাদি সিরিয়ালে খাওয়া যায়।


এছাড়াও যে খাবারগুলি অবশ্যই ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত সেগুলি হল রুটি, মটরশুটি, বাদাম, মুরগি, সামুদ্রিক মাছ। আক্রান্তরা অল্প পরিমাণে ক্যাস্ট্রেটেড মাংস খেতে পারে। তবে যতটা সম্ভব লাল মাংস না খাওয়া শরীরের জন্য ভালো। তেলের ক্ষেত্রে অলিভ অয়েল ব্যবহার করা যেতে পারে। এর পাশাপাশি মিষ্টি পানীয় সম্পূর্ণ বাদ দিতে হবে। আপনি চিনি ছাড়া চা, চিনি ছাড়া কালো কফি, জল পান করতে পারেন।


কোন খাবারগুলি সম্পূর্ণরূপে বাদ দেওয়া উচিত?

শুয়োরের মাংস, গরুর মাংস, চামড়া সহ মুরগি খাওয়া সম্পূর্ণ বর্জন করা উচিত। আপনি কোন ধরনের খাওয়া বন্ধ করতে হবে মিষ্টি  এটি রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ায়। আইসক্রিম খাওয়া বন্ধ করতে হবে। চিনিযুক্ত পানীয় পান করা বন্ধ করতে হবে। আপনাকে মাইক্রোওয়েভে তৈরি চিপস এবং পপকর্ন খাওয়া বন্ধ করতে হবে। এমনকি যদি আপনি প্রক্রিয়াজাত খাবার খান, এটি শরীরের ক্ষতি করতে পারে আরে। আপনি যে কোনও মিষ্টি খাবার খাওয়া বন্ধ করুন।


সঠিক খাবার খেলে এবং কিছু খাবার সম্পূর্ণ বাদ দিলে অনেকটাই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।





------------

tags:

type 2 diabetes, type 2 diabetes (disease or medical condition), diabetes, diabetes type 2, type 2, diabetes type 1, what is type 2 diabetes, type 2 diabetes symptoms, diabetes mellitus, diabetes mellitus (disease or medical condition), diabets type 2, diabetes type 2 uitleg, type 2 diabetes eyes, type 2 diabetes diet, type 2 diabetes cure, diabetes type 2 genezen, diabetes type 2 omkeren, cure for diabetes type 2, diabetes mellitus type 2, diabetes type 2 symptoms, 

টাইপ ২ ডায়াবেটিস, ডায়াবেটিস, টাইপ ১ ডায়াবেটিস, টাইপ ২ ডায়াবেটিস, টাইপ ২ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে, টাইপ-২ ডায়াবেটিস, টাইপ ২ ডায়াবেটিস কি?, টাইপ – ২ ডায়াবেটিস, ডায়াবেটিস টাইপ ২ কি, টাইপ ২ ডায়াবেটিস কেন হয়?, টাইপ ২ ডায়াবেটিস ভালো হয়, ডায়বেটিস টাইপ ২, টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ওষুধ, টাইপ ২ ডায়াবেটিস কি? ডায়াবেটিসের ওষুধ কি, টাইপ ২ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ সমূহ, টাইপ ২, ডায়াবেটিস টাইপ ২