Wednesday 20th of October 06:17:20am

Signs of Vitamin Deficiency-শরীরে ভিটামিনের অভাব? লক্ষণগুলো বুঝুন

Signs of Vitamin Deficiency-


শরীরে ভিটামিনের অভাব? লক্ষণগুলো বুঝুন


মানুষের শরীরে ভিটামিনের অভাব হলে  রোগ শুরু হয়। যদি অনেক রোগ প্রতিরোধ করতে ভিটামিন কম হয় তাহলে সমস্যা বাড়বে। যে কোনো ধরনের ভিটামিনের অভাব শরীরে রোগের ঝুঁকি বাড়ায়। কিন্তু শরীরে ভিটামিনের অভাব কিভাবে বুঝবেন।


বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, রোগ ধরা পড়ার পর বোঝা যায় যে তার শরীরে ভিটামিনের অভাব রয়েছে। কিন্তু আপনি কি জানেন যে শরীরে ভিটামিনের অভাব আছে কিনা তা বলার একটি সহজ উপায় আছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানবদেহে ভিটামিনের অভাব মুখের দিকে তাকালেই বোঝা যায়। তো চলুন দেখে নিই এমন কিছু ইঙ্গিত যা আপনার শরীরে ভিটামিনের অভাব বুঝতে পারে।



ফাটা বা শুষ্ক ঠোঁট ভিটামিনের অভাবের অন্যতম লক্ষণ। রক্তাল্পতার কারণে ঠোঁট শুকানোর প্রবণতাও রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা এই সমস্যার জন্য সামুদ্রিক খাবার, মটরশুটি এবং সবজি খাওয়ার পরামর্শ দেন। শুষ্ক চুলও মানে শরীরে ভিটামিনের অভাব। ভিটামিন বি -7 বা বায়োটিনের পরিমাণ কমে গেলে চুল শুষ্ক হতে পারে। নখও ক্ষয় হতে শুরু করে। পর্যাপ্ত ডিম, বাদাম ইত্যাদি খাওয়া শরীরে ভিটামিন বি 6 এর পরিমাণ উন্নত করতে পারে। মাড়ি থেকে রক্ত ​​বের হলেও দ্রুত সতর্ক হোন। মুখের ভিতরে যেকোনো ধরনের সমস্যা সাধারণত ভিটামিন সি -এর অভাবের কারণে হয়ে থাকে।



ঘুম থেকে ওঠার পর যদি আপনি ফোলা চোখ বা চোখের নিচের অংশ ফুলে যেতে দেখেন, তাহলে সাবধান। বুঝবেন শরীরে আয়োডিনের পরিমাণ কমে যাচ্ছে। ফলে সারাদিন ক্লান্তির অনুভূতি থাকে। ত্বক শুষ্ক হয়ে যায় এবং ওজন বৃদ্ধি পায়। শরীরে আয়োডিনের পরিমাণ ঠিক রাখতে আপনি বেদানা, দই, আলু, স্ট্রবেরি খেতে পারেন।



যদি ত্বকের উজ্জ্বলতা কমে যায়, আপনি অনুমান করতে পারেন যে শরীরে ভিটামিন বি 12 এর অভাব রয়েছে। এই ভিটামিনের অভাবে ত্বক খারাপ হয়ে যায়। এ ছাড়া সারাদিন শরীর ক্লান্ত বোধ করবে। আপনি আপনার জিহ্বায় কোন খাবারের স্বাদ পাবেন না। ভিটামিন বি 12 এর পরিমাণ ঠিক রাখতে সালমন মাছ, লাল মাংস, দই এবং পনির খান।


শরীরে ভিটামিন ডি এর অভাব? কিভাবে বুঝব



আপনি ভিটামিন ডি -এর অভাবে ভুগছেন যার পরিণতি মারাত্মক হতে পারে। এই রোগের সঠিক লক্ষণগুলো জেনে নিন।


যদি শরীরে ভিটামিন ডি এর ঘাটতি থাকে, প্রাথমিকভাবে আপনি সারাদিন ক্লান্ত বোধ করবেন। কোনভাবেই ক্লান্তি কাটবে না। ভিটামিন ডি এর পরিমাণ কমে গেলে মাংসপেশিতে টান পড়তে পারে। হাড়ের ব্যথা বা টেনশনের প্রবণতাও রয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে ভিটামিন ডি -এর অভাবে চুল পড়া শুরু হয়।

এক কথায়  রোদে হাঁটা এবং সুষম খাদ্য খাওয়া শরীরে ভিটামিন ডি লেভেল রাখার প্রথম উপায়। তারা বলে যে আপনি যদি আরো ভিটামিন ডি পেতে চান তবে আপনাকে বড় মাছ খেতে হবে এবং আপনাকে ডিমের হলুদ অংশ খেতে হবে। মাশরুম কর্ড লিভার ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে।











------------------

tags:

ভিটামিনের অভাব,শরীরে ভিটামিনের অভাবের লক্ষণ,শরীরে ভিটামিনের অভাব,ভিটামিন ডি এর অভাবে কি রোগ হয়,ভিটামিন ডি,শরীরে ভিটামিন এর অভাব বুঝার উপায় কি,ভিটামিন,ভিটামিন ডি এর ঘাটতি বা অভাব এর কারণ ও লক্ষণ,শরীরের কোন সমস্যায় প্রয়োজন কোন ভিটামিন,ভিটামিনের অভাব শরীরে,লক্ষণ,ভিটামিনের অভাবে কি হয়,শরীরে ভিটামিনের অভাব হলে কি হয়,কোন ভিটামিনের অভাবে কী রোগ হয়,শরীরে ভিটামিন এর অভাব,ভিটামিন ডি এর অভাব,ভিটামিনের অভাবে কি কি রোগ হয়,ভিটামিন ডি এর লক্ষণ,

vitamin d deficiency,vitamin d deficiency symptoms,symptoms of vitamin d deficiency,vitamin deficiency,vitamin b12 deficiency symptoms,signs of vitamin d deficiency,symptoms of vitamin b12 deficiency,vitamin deficiency symptoms,vitamin b12 deficiency,vitamin d,signs of vitamin deficiency,vitamin c deficiency symptoms,common symptoms of vitamin deficiency,vitamin d deficiency treatment,vitamin c deficiency,what are the symptoms of vitamin d deficiency,vitamin,

vitamin er ovab bujar lokkon, signs of vitamin deficiency