Thursday 9th of December 07:42:44am

মাইল্ড শ্যাম্পু বানানোর কৌশল

৫০ গ্রাম শিকাকাই, আমলকী ও  রিঠা ১২ ঘন্টা  ১মগ পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। তারপর এই পানিসহ সব উপকরণ একসাথে সেদ্ধ করতে হবে। দশ মিনিট পর পানি ফুটলে চুলা থেকে নামিয়ে ঠান্ডা করে সবগুলো উপকরণ  চটকে বিচি ফেলে দিতে হবে। এরপর ছাকনি দিয়ে ছেকে বোতলে ভরে পানিটা রাখতে হবে। হয়ে গেল ঘরে তৈরি মাইল্ড শ্যাম্পু। এই শ্যাম্পু ব্যবহারে চুল  হয়ে উঠবে সিল্কি আর খুশকিমুক্ত। 


২) ডিম ও অলিভ অয়েল ক্লেঞ্জিং

চুলের ড্যামেজ রক্ষা ও শুষ্ক হওয়া  করতে ডিমের জুড়ি নেই। ডিমের বায়োটিন, ফলেট চুলকে বৃদ্ধি করে। ডিমে কুসুম বেশি উপকারী এতে আছে প্রোটিন বায়োটিন, ফলেট এবং আরও আছে ভিটামিন এ, ডি ও ই। ডিমে আয়রন যা স্ক্যাল্পে কোষের বৃদ্দি করে। অর্থাৎ আপনার চুলের সার্বিক স্বাস্থ্যের জন্য ডিম ব্যবহার খুবই দরকার।

ডিম ও অলিভ অয়েল, এই দুটো উপাদান একসাথে ম্যাজিকের মতো কাজ করে। সপ্তাহে দুই দিন ব্যবহার চুলকে করে স্বাস্থোজ্জ্বল!


তৈরির পদ্ধতি

একটি বাটিতে ১টা ডিম ও এক চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে ভালো করে মেশান। চুলের দৈর্ঘ্য অনুযায়ী তেলের পরিমাণ বাড়াতে পারেন। যখন এটি মসৃণ পেষ্টের আকার ধারণ করবে তখন এটা মাথার 

ত্বকে লাগান। ৪০/৪৫ মিনিট পর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই মিশ্রণ ব্যবহারে আপনার চুল আর স্ক্যাল্প শুষ্ক হবে না। সেই সাথে চুল হয়ে উঠবে গর্জিয়াস।


৩) ডিমের হেয়ার কন্ডিশনার

ডিম দিয়ে ভালো কন্ডিশনারও বানানো যায়। তবে চলুন দেখে নেই!

কন্ডিশনার তৈরির পদ্ধতি

২টি ডিম, ২ টেবিল চামচ টকদই একসাথে মিশিয়ে আপনার পুরো চুলে লাগান। স্ক্যাল্পে লাগানোর কোন দরকার নেই। এভাবে ৩০ মিনিট রেখে দিন। ৩০ মিনিট পর মাইল্ড শ্যাম্পু আর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। পার্থক্যটা সাথে সাথেই বুঝতে পারবেন।  আপনার চুল হয়ে উঠবে অনেক সিল্কি আর শাইনি।


৪) মধু ও অলিভ অয়েল মিশ্রণ

ঝরঝরে শাইনি চুল পেতে এই ট্রিটমেন্ট দারুন কাজের।

তৈরির পদ্ধতি

১/২ কাপ অর্গানিক মধু , ১/৪ কাপ অলিভ অয়েল এক সাথে মিশিয়ে হাল্কা গরম করে নিন। এরপর মিশ্রণটি ভালোভাবে চুলে লাগিয়ে ২৫/৩০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন এই মিশ্রণ ব্যবহার করুন। দেখবেন শুষ্ক চুলের সমস্যা ধীরে ধীরে কমে যাচ্ছে আর চুল হয়ে উঠছে গর্জিয়াস।


৫) অ্যালোভেরা জেল ও লেবুর রস

চুল পড়া বন্ধে আর নিস্প্রাণ চুলকে প্রাণবন্ত করতে অ্যালোভেরা ও লেবুর রসের মিশ্রণ খুব উপকারী। তার আগে জেনে নেই এমন কী উপাদান আছে এই অ্যালোভেরা জেল আর লেবুর রসে যা চুলের জন্যে উপকারী। অ্যালোভেরাতে আছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন, প্রোটিন ও নানা মিনারেলস যা চুলের পুষ্টির যোগান দেয়, চুল পড়া বন্ধ করে আর চুলকে করে ঘন, সিল্কি, শাইনি। এর প্রোটিওলাইটিক এনজাইম আপনার স্ক্যাল্পের ড্যামেজকে সারিয়ে তুলতে পারে। ফলে আপনার চুলের পুষ্টির পাশাপাশি চুল পড়া বন্ধ করে আর চুল বাড়েও তাড়াতাড়ি। চুলকে খুব সুন্দরভাবে কন্ডিশন করে আর খুশকির সমস্যা দূর করে। অ্যালোভেরায় থাকা অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান স্ক্যাল্পের ইনফেকশনের সম্ভাবনাকে কমায় আর স্ক্যাল্পের প্রদাহ বন্ধ করে। আর লেবুতে আছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি যা চুলে থাকা কোলাজেনের সিন্থেসিসে দারুন সাহায্য করে। আর খুশকি সমস্যা মোকাবেলায় দারুন কাজ করে।


অ্যালোভেরা আর লেবুর রস দিয়ে মিশ্রণ তৈরির পদ্ধতি:

অ্যলোভেরা জেল ও একটা লেবু নিন। একসাথে ভালো করে মিশিয়ে চুলের গোড়াসহ লাগান। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিন। সপ্তাহে ২দিন এই মিশ্রণ ব্যবহারে আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে আর চুল হবে অনেক ঝরঝরে সুন্দর।