Thursday 20th of January 07:11:47pm

দরুদে তাজ বাংলা উচ্চারণ ও ফজিলত - durood e taj in bangla pronunciation

দরুদে তাজ বাংলা উচ্চারণ ও ফজিলত - durood e taj in bangla pronunciation

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম


দরূদে তাজ আরবি:

اَللّٰهُمَّ صَلِّ عَلىٰ سَيِّدِنَا وَمَوْلَانَا مُحَمَّدٍ صَاحِبِ التَّاجِ وَالْمِعْرَاجِ وَالْبُرَاقِ وَالْعَلَمِ دَافِعِ الْبَلَاءِ وَالْوَبَاءِ وَالْقَحَطِ وَالْمَرَضِ وَالاَلَمِ اِسْمُهُ مَكْتُوْبٌ مَرْفُوْعٌ مَشْفُوْعٌ مَنْقُوْشٌ فِي اللَّوْحِ وَالْقَلَمِ سَيِّدِ الْعَرَبِ وَالْعَجَمِ جِسْمُهُ مُقَدَّسٌ مُعَطَّرٌ مُطَهَّرٌ مُنَوَّرٌ فِي الْبَيْتِ وَالْحَرَمِ شَمْسِ الضُّحىٰ بَدْرِ الدَّجىٰ صَدْرِ الْعُلىٰ نُوْرِ الْهُدٰى كَهْفِ الْوَرٰى مِصْبَاحِ الظُّلَمِ جَمِيْلِ الشِّيَمِ شَفِيْعِ الْاُمَمِ صَاحِبِ الْجُوْدِ وَالْكَرَمِ وَاللهُ عَاصِمُهُ وَجِبْرِيْلُ خَادِمُهُ وَالْبُرَاقُ مَرْكَبُهُ وَالْمِعْرَاجُ سَفَرُهُ وَسِدْرَةُ الْمُنْتَهٰى مَقَامُهُ وَقَابَ قَوْسَيْنِ مَطْلُوْبُهُ وَالْمَطْلُوْبُ مَقْصُوْدُهُ وَالْمَقْصُوْدُ مَوْجُوْدُهُ سَيِّدِ الْمُرْسَلِيْنَ خَاتَمِ النَّبِيّيْنَ شَفِيْعِ الْمُذْنَبِيْنَ اَنِيْسِ الْغَرِيْبِيْنَ رَحْمَةً لِلْعٰلَمِيْنَ رَاحَةً الْعَاشِقِيْنَ مُرَادِ الْمُشْتَاقِيْنَ شَمْسِ الْعَارِفِيْنَ سِرَاجِ السَّالِكِيْنَ مِصْبَاحِ الْمُقَرَّبِيْنَ مُحِبِّ الْفُقَرَاءِ وَالْمَسَاكِيْنَ سَيِّدِ الثَّقْلَيْنِ نَبِيِّ الْحَرَمَيْنِ اِمَامِ الْقِبْلَتَيْنِ وَسِيْلَتِنَا فِي الدَّارَيْنِ صَاحِبِ قَابَ قَوْسَيْنِ مَحْبُوْبِ رَبِّ الْمَشْرِقَيْنِ وَالْمَغْرِبَيْنِ جَدِّ الْحَسَنِ وَالْحُسَيْنِ مَوْلَانَا وَمَوْلىٰ الثَّقْلَيْنِ اَبِى الْقَاسِمِ مُحَمَّدِ بْنِ عَبْدِ اللهِ نُوْرٍ مِنْ نُوْرِ اللهِ يَا اَيُّهَا الْمُشْتَاقُوْنَ بِنُوْرِ جَمَالِهٖ صَلُّوا عَلَيْهِ وَسَلِّمُوا تَسْلِيْمًا


দুরুদে তাজ বাংলা উচ্চারণ:

আল্লাহুম্মা সাল্লি আ’লা সায়্যিদিনা ওয়া মাওলানা মুহাম্মাদিন, সাহিবিত্ তাজি ওয়াল মি’রাজি ওয়াল বুরাক্বি ওয়াল আলাম। দা-ফিয়িল বালায়ি, ওয়াল ওবায়ি, ওয়াল ক্বাহাতি, ওয়াল মারাদ্বি, ওয়াল আলাম। ইসমুহু মাক্বতুবুন, মারফুউন, মাশফুউন, মানকূশুন, ফিল-লাওহি ওয়াল ক্বালাম। সায়্যিদিল আরাবি ওয়াল আজম। জিসমুহু মুক্বাদ্দাসুন, মুয়াত্তারুন, মতাহ্হারুন, মুনাও-ওয়ারুন, ফিল বাইতি ওয়াল হারাম। শাসছিদ্দুহা, বদরিদ্দুজা, সাদরিল-উলা, নু-রিল হুদা, কাহফিল ওয়ারা, মিসবাহিয্ যুলাম। জামীলিশ্ শিয়ামি শাফিয়িল উমামি, সা-হিবিল জু-দি ওয়াল কারাম। ওয়াল্লাহু আছিমুহু, ওয়া জিব্রীলু খাদিমুহু, ওয়াল বুরাক্বু মারকাবুহু, ওয়াল মি’রাজু ছাফারুহু, ওয়া সিদরাতুল মুন্তাহা মাক্বামুহু ওয়া ক্বাবা ক্বাওসাইনি, মাতলুবুহু ওয়াল মাতলুবু, মাক্বসুদহু ওয়াল মাক্বসুদু মাওজুদুহু, সায়্যিদিল মুরসালীনা, খা-তামিন নাবিইয়্যীনা, শাফিয়িল মুযনিবীনা, আনীছিল গারীবীনা রহ্মাতাল-লিল আ’লামীনা, রহাতিল আ-শিক্বীনা, মুরাদিল মুশ্তাক্বীনা, শামছিল আ-রিফীনা, সিরাজিছ্ ছা-লিকিনা, মিছবাহিল্ মুর্ক্বারাবীনা, মুহিব্বিল্ ফোক্বারায়ি ওয়াল গোরাবায়ি, ওয়াল মাছাকীনা, সয়্যিদিছ্ ছাক্বলায়নি, নাবিয়্যিল হারামায়নি, ইমামিল ক্বিবলাতাইনি, ওয়াসীলাতিনা ফিদ্দারায়নি, ছাহিবি ক্বা-বা ক্বাওছাইনি, মাহ্বূবি রাব্বিল মাশরিকায়নি ওয়াল মাগরিবাইনি, জাদ্দিল হাসানি ওয়াল হুসাইনি (রাদ্বিআল্লাহু আন্হুমা) মাওলানা ওয়া মাওলাছ্ সাক্বলাইনি, আবিল ক্বাছিম মুহাম্মদ বিন আব্দিল্লাহি নূরিম মিন নূরিল্লাহ। ইয়া আয়য়ূহাল মুশতাকুনা বিনূরি জামালিহী সাল্লু আলায়হি ওয়া সাল্লিামূ তাসলীমা।



দুরূদে তাজের ফযীলত: 

কোরআনে কারিমে ইরশাদ করা হয়েছে, ‘হে ঈমানদারগণ! তোমরাও তার(নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) ওপর দরুদ শরিফ পাঠ কর এবং যথাযথভাবে সালাম প্রেরণ কর।’-সূরা আহজাব: ৫২


এ দরূদ পাঠের ফযীলত অপরিসীম । মনের পবিত্রতা লাভের জন্য ফজরের নামাযের পর ৭ বার, আছরের নামাযের পর ৩বার, ইশার নামাযের পর ৩ বার পড়তে হয়।  মধ্যরাতের পর অযু সহকারে এ দরূদ ৪০  বার   পাঠ  করলে   আল্লাহর ইচ্ছায়  তার যেকোন নেক মকসুদ পূর্ণ হবে।  যদি কোন ব্যক্তি রাসল (সঃ)-কে স্বপ্নে দেখার আকাঙখা করে, তবে সে যেন চন্দ্র মাসের শুক্ল পক্ষে প্রথম বৃহস্পতিবার রাত্রে এশার বাদে পবিত্র শরীরে ও সুগন্ধিযুক্ত পােশাকে ১৮০ বার এ দুরূদ পাঠ করে। এভাবে ১১ দিন পাঠ করলে আল্লাহর ইচ্ছায় সে ব্যক্তি মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ)-এর দেখা লাভ করবে । অন্য জায়গায় বলা হয়েছে, জুমআর রাতে এ’শার নামায শেষে এই দুরূদ শরীফ ১৮০ বার পাঠ কওে শুলে ইন্শাআল্লাহ রাসূল সাল্লাল্লাহু আলায়হি ওয়াসাল্লাম এর জিয়ারত নসীব হবে। ১১ দিন এই আমল করলে মনের আশা পূর্ণ হবে। এই দুরূদ শরীফ সর্বদা পড়লে মনের বাসনা পূর্ণ হয়। জ্বিনের আছর, শয়তানের কুমন্ত্রণা  থেকে  বাঁচতে  এই দরূদশরীফ ১১বার   পাঠ করে পানিতে ফুঁক দিলে ইনশাআল্লাহ উপকার হবে। অভাবের দেখা দিলে  উক্ত  দরূদশরীফ প্রত্যেক নামাযের পর  ৭ বার এবং এশার নামাযের পর ১০০ বার নিয়মিত পাঠ করতে হবে আল্লাহর ইচ্ছায় অভাব মুক্ত হবেন।




---------------

দরুদে তাজ বাংলা উচ্চারণ ও ফজিলত - durood e taj in bangla pronunciation

Tags:

দরুদে তাজ,  দরুদে তাজ এর ফজিলত,  দরুদে তাজ বাংলা উচ্চারণ,  দরুদে তাজ বাংলা উচ্চারণ ও ফজিলত,  তাজ,  shobe barater alochona দরুদে তাজের ফযীলত,  দরুদে,  দুরূদ,  দরূদে তাজ বাংলা,  darood e taj,  দরুদে তাজ বাংলা অর্থ,  দরুদে তাজ বাংলা,  দরুদে তাজ আরবি,  দরুদে তাজ আরবী,  দরুদে তাজ কি,  দরুদ শরীফ দরুদে তাজ,  durood e taj,  darood taj,  darood,  darood sharif,  durood,  durood sharif bangla,  durood taj,  taj,  darood taj full,  durood e taj in bangla pronunciation,  latest darood e taj,  darood e taj new,  darood e taj naat,  darood e taj full,  darood e taj benefits,  durood e taj in bangla,  pronunciation,  durood e taj bangla, দরুদে-তাজ-বাংলা-উচ্চারণ-ও-ফজিলত-durood-e-taj-in-bangla-pronunciation