Wednesday 20th of October 06:31:58am

la hawla fazilat bangla-তাসবীহ ও লা হাওলার ফযিলত

la hawla fazilat bangla-


তাসবীহ ও লা হাওলার ফযিলত


তাসবীহের ফযিলত 


আল্লাহ রাব্বল আলামীন পবিত্র কুরআনের ৭টি সূরা তাসবীহ দ্বারা শুরু করেছেন । তাছাড়া তাসবীহ সম্বলিত অগণিত আয়াত পবিত্র কুরআনে সন্নিবেশিত আছে। এতে এই কথার প্রতিই ইঙ্গিত করা হয়েছে যে, হে দুনিয়ার মানুষ! তোমরা যথাসম্ভব বেশি বেশি তাসবীহ পাঠ কর এবং আল্লাহ পাকের হামদ প্রচার কর। 


পবিত্র কুরআনে আল্লাহ পাক ইরশাদ করেছেন, সপ্তস্তর আকাশ-মণ্ডল ও ভূ-মণ্ডল এবং এতদুভয়ে অবস্থানকারী বস্তুনিচয়, এমনকি প্রতিটি বস্তুই আল্লাহ পাকের হামদ ও

তাসবীহ পাঠ করছে। মূলতঃ তোমরা তাদের, তাসবীহের ভাষা বুঝতে পারছ না। অবশ্য আল্লাহ পাক সহনশীল ও ক্ষমতার আধার। 


অন্যত্র আল্লাহ পাক আরো ইরশাদ করেন, “তোমরা আল্লাহর প্রশংসাসুলভ তাসবীহ পাঠ কর সূর্য উদয়ের আগে, সূর্য অস্ত যাওয়ার আগে এবং রাতের কিছু অংশে এবং দিনের অংশ বিশেষে; এতে করে আল্লাহর রেজামন্দি লাভ করতে সক্ষম হবে।


হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, দুটো কালেমা এমন যে, এ দুটো আল্লাহ পাকের নিকট খুবই প্রিয়, মুখে উচ্চারণ করা খুবই সহজ এবং মিজানে এগুলোর ওজন খুবই ভারী এবং আল্লাহর নিকট খুব প্রিয়, এর একটি হচ্ছে- সুবহানাল্লাহি অ.বিহামদিহী এবং অপরটি হচ্ছে ‘ছুবহানাল্লাহিল আজীম।


হাদীস শরীফে আরো আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, চারটি কালেমা আল্লাহ পাকের নিকট অধিক প্রিয়। প্রথমটি হচ্ছে-~~সুবহানাল্লাহ। দ্বিতীয়টি হচ্ছে—আলহামদু লিল্লাহি তৃতীয়টি হচ্ছে-“অ লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ এবং চতুর্থটি হচ্ছে- আল্লাহু আকবার।


এগুলোর যেকোন একটিকে দিয়েই যিকির আরম্ভ করা যায়।


হাদীস শরীফে আরো আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রত্যেক নামাজের পর ৩৩ বার আল্লাহর  তাসবীহ সুবহানাল্লাহ ৩৩ বার আল্লাহর প্রশংসা ‘আলহামদু লিল্লাহ এবং ৩৩ বার আল্লাহর শ্রেষ্ঠত্ব ‘আল্লাহু আকবার” এই নাম ৯৯ বার পাঠ করলে একশত বার পূর্ণকরার জন্য এবার ‘লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু অহদাহু লা শারীকালাহু লাহুল, মুলকু অ লাহুল হামদু, অ হুঅ ‘আলা কুল্লি শাইয়িন কাদীর পাঠ করবে, তবে তার গোনাহ রাশি মাফ হয়ে যাবে, যদিও তা সাগরের ফেনাপুঞ্জের মতো অধিক হয়। 


হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্গাহ (সাঃ) বলেছেন, রোজ কিয়ামতে সুবহানাল্লাহ মিজানের অর্ধেক  পূর্ণ করে দেবে। আর বাকি অর্ধেক পূর্ণ করবে ‘আলহামদু লিল্লাহ। আর ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু আল্লাহর দীদার লাভের পথ সহজ করবে।


হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্গাহ (সাঃ) বলেছেন, যখন কোন শিকারী কোন বস্তু শিকার করে, কিংবা কোন ব্যক্তি কোনও বৃক্ষ কাটে, তখন সেই পরিমাণ তাসবীহও কমে যায়।


হাদীস শরীফে আরো আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, আমি তোমাদেরকে এমন একটি তাসবীহ শিক্ষা দেব, যা হযরত নূহ স্বীয় সন্তানকে শিক্ষা দিয়েছিলেন তা হলো, সুবহানাল্লাহি অ বিহামদিহী। এটাই হলো সৃষ্টি জগতের তাসবীহ, পৃথিবীবাসীর সালাত এবং দুনিয়াবাসীর রিযিকের উৎস।


অপর এক হাদীসে আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রত্যহ একশত বার “সুবহানাল্লাহি অ বিহামদিহী” পাঠ করবে, তার আমলনামা হতে পাপরাশি মুছে যাবে যদিও তা সাগরের ফেনরাশির মতো অধিক হয়। 


হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করেছেন, একদিন আমি বিবি জুয়াইরিয়াকে বললাম, হে জুয়াইরিয়া! আমি কি তোমাকে এমন একটি কালেমা শিক্ষা দেব, যার নেক রোজ কিয়ামতে সারা দিন ওজন দিলেও শেষ হবে না, তাহলে তোমার এই কালেমা পাঠ করা দরকার—

“সুবহানাল্লাহি অ বিহামদিহী আদাদা খালকিহী অ রিজায়া নাফছিহী অ যীনাতা আরশিহী অ মিদাদা কালিমাতিহী।”



লা হাওলার ফযিলত 


হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করেছেন, আমি কি তোমাদের কাছে এমন একটি কালেমার কথা বলব না, যা আরশের নিচে সংস্থাপিত এবং জান্নাতের গোপন ধন । তা হলো ‘লা-হাওলা অলা কুওয়্যাতা ইল্লা বিল্লাহ। তা শুনে আল্লাহ পাক বলেন, আমার বান্দাহ আত্মসমর্পণ করেছে এবং তাকে নিরাপত্তা প্রদান করা হয়েছে।


হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, “লা-হাওলা অলা কুওয়্যাতা ইল্লা বিল্লাহ’ ৯৯টি রোগের ঔষধ । এর ছোটটি হলো দুশ্চিন্তা।


হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করেছেন, জমীনের বুকে যখন কেউ এই বলে, “লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু আল্লাহু আকবার অলা হাওলা অলা কুওয়্যাতা ইল্লা বিল্লাহ’ তার আমলনামায় পাপগুলো মুছে যায়, যদিও তা সাগরের ফেনাৱাশির মতো অধিক হয়। 


হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, তোমরা তাসবীহ, তাহলীল, তাকবীর ও তাহমীদ সম্বলিত কালেমা অধিক হারে পাঠ কর। সে কালেমাটি হল “অলা হাওলা অলা কুয়্যাতা ইল্লা বিল্লাহ।”








------

tags:

লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ এর ফযিলত, লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ, লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ পাঠের ফযিলত, লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ, লা হাওলা, লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ এর ফজিলত, লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ ফজিলত, লা হাওলা ওয়ালা কুঊয়াতা, লা হাওলা ওয়ালা কুয়্যাতা, লা হাওলার ওয়ালা কুয়্য়াতা ইল্লা- বিল্লাহ এর ৪টি ফযীলত ও আমল, লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ পাঠ করার ফজিলত ও আমল, 

la hawla wala quwwata illa billah, la hawla wala quwwata illa billah ki fazilat, la hawla wala quwwata illa billah benefits, la hawla wala quwwata, la hawla wala quwata illa billah kay wazifa ki fazilat, la hawla wala quwwata ki fazilat, la hawla wala quwwata illa billah meaning, la hawla wala quwwata illa billah padhne ki fazilat, la hawla wala quwwata illa billah ka wazifa, la hawla wala quwwata illa billah ke fayde, la hawla wala quwwata illa billah ki fazeelat